ঘুমের সমস্যা? বৈজ্ঞানিক উপায়ে সমাধান করে নিন আজই!

ঘুম নেই তো আপনি শেষ। আবার বেশি ঘুমও ক্ষতিকর। কিন্তু নিম্নের এই পদ্ধতি ও অভ্যাসগুলো ইতি টেনে দিতে পারে আপনার ঘুমজনিত সমস্যার।

১। আসেনা যে ঘুম!

যা করবেনঃ

  • ঘুমাতে যাবার কয়েক ঘণ্টা আগেই ক্যাফেইনজাতীয় খাবার বা ড্রিঙ্কস এড়িয়ে চলুন।
  • সকাল-সন্ধ্যায় একটু হলেও ব্যায়াম বা খেলাধুলা করুন। অন্তত হাঁটুন।
  • ফোন নিয়ে বিছানায় যাবার অভ্যাস বাদ দিন। কমপক্ষে একঘণ্টা আগেই ওটাকে চার্জে বসান বা দূরে রেখে দিন।

 

২। কাঁধে যে ব্যাথা!

যা করবেনঃ

  • পছন্দমত পাশে কাঁত হয়ে ঘুমানো বাদ দিন। যদি একপাশে ঘুমানোর অভ্যাস থাকে আর একপাশের কাঁধে ব্যাথা করে তাহলে যে পাশে ব্যাথা তার অপর পাশে ঘুরে ঘুমান।
  • একটা বালিশ জড়িয়ে নিয়ে দেখতে পারেন।

 

৩। উঠতে তো পারিনা!

যা করবেনঃ

  • প্রতিদিন একই সময়ে জাগার অভ্যাস করুন, এমনকি তা ছুটির দিনেও। এতে আপনার শরীর-ঘড়ি আপনার অভ্যাসের সাথে অভ্যস্ত হয়ে যাবে।

 

৪। ঘুমতো কাটাতেই পারিনা!

যা করবেনঃ

  • ঘুমাতে যাবার আগে সকল প্রকার অ্যালকোহল খাওয়া বাদ দিন। (দিতেই হবে) অ্যালকোহল আপনাকে গভীর ঘুমে যেতেই দেবে না। (যেটাকে REM স্লিপ বলে)
  • ঘুমের ঘরের তাপমাত্রা ৬৮-৭১ ডিগ্রী ফারেনহাইটের (২০ থেকে ২০ ডিগ্রী সেলসিয়াস) মাঝে রাখুন।

 

৫। পিঠে খুব ব্যাথা!

যা করবেনঃ

  • উরুর নিচে একটা বালিশ রাখুন যদি উবু হয়ে ঘুমান। (এভাবে ঘুমানো ক্ষতিকর) আর যদি চিত হয়ে ঘুমান তাহলে পায়ের নিচে বালিশ রাখুন।

 

৬। গলার পেছনে ব্যাথা!

যা করবেনঃ

  • অন্তত দুই বছর অন্তর বালিশ বদলে ফেলুন। গবেষণায় দেখা গেছে একটু শক্ত বালিশ সবচে বেশি আরামদায়ক।

 

৭। পায়ে শিরটান লাগে!

যা করবেনঃ

  • যেখানে শিরটান লাগে সেখানের মাংসপেশিতে হালকা তাপ দিয়ে একটু ম্যাসেজ করুন। পা ভাঁজ করে আবার মেলে ধরুন। এরকম কয়েকবার করুন।

 

৮। অ্যাসিডে যন্ত্রণা দেয়!

যা করবেনঃ

  • চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
  • বালিশটি কিছুর সাথে হেলান দিয়ে রেখে উচু করে নিতে পারেন।

 

৯। নাক ডাকি খুব!

যা করবেনঃ

  • একপাশে কাঁত হয়ে ঘুমান, মাথাটা কয়েক ইঞ্চি উঁচুতে রাখবেন।
  • ঘুমানোর আগে সাইনাস সেইলিন (saline) মানে লবনপানি দিয়ে পরিষ্কার করে নিন।
  • অ্যালকোহলকে গুডবাই বলুন চিরতরে।

সুন্দর অভ্যাস সবকিছুকে সুন্দর করে দিতে পারে। কাছের মানুষেরাও শিখতে পারে একজনের দেখাদেখি।

জীবন সুন্দর, সব সুন্দর!

ধন্যবাদ।

 

তথ্যসূত্রঃ THISISINSIDER

ঘুমের সমস্যা? বৈজ্ঞানিক উপায়ে সমাধান করে নিন আজই!

About The Author
-

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>