ডায়াবেটিকস রোধে সেরা ১০ খাবার #১ম পর্ব

গাছ-গাছড়া বা সম্পূরক কোন খাবার কি আপনার ডায়াবেটিকস নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে? এমন খাবার আছে কি যা রক্তে সুগারের পরিমাণ কমায়? ইনসুলিনের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি করে? উচ্চরক্তচাপ এবং কলেস্টরল কমায়? হ্যা, অবশ্যই! আর আজ থাকছে তেমনই ১০ টি খাবারের নাম ও তাদের উপকারিতা নিয়ে এই লেখা।

নতুন ওষুধ নেওয়ার আগে চিকিৎসকের সাথে কথা বলে নিন। বিশেষ করে রক্তের সুগারের মাত্রা কমানোর ওষুধের ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে। নিয়মিত ব্লাড সুগার পরিক্ষা করে দেখতে হবে এবং চিকিৎসককে জানিয়ে ওষুধের মাত্রাটা ঠিক করে নিতে হবে। এরপরও যদি এক বা দুইমাস পর কোন ফল না দেখা যায়, তখন একই ওষুধের পেছনে টাকা খরচের নামে অপচয়ই হবে।

 

Gymnema sylvestre (গুরমার বা মেষশৃঙ্গ)

marilyn barbone/Shutterstock

marilyn barbone/Shutterstock

  • প্রধান কাজঃ রক্তে সুগারের মাত্রা কমানো
  • স্বাভাবিক নেওয়ার মাত্রাঃ ২০০ থেকে ২৫০ মিলিগ্রাম করে দিনে দু’বার

এই গাছড়ার হিন্দি নামের অর্থ হল “চিনি বিনাশী” (sugar destroyer), এবং বলা হয়ে থাকে এটা সেবন করলে মুখে মিষ্টি সনাক্তকরণের ক্ষমতা কমে যায়, অর্থাৎ মিষ্টি খাবারের মিষ্টি স্বাদ আপনার মুখে কম অনুভব হবে। ব্লাড সুগার কমানোর জন্য গুরমারকে সবচে কার্যকরী ওষধির একটা হিসেবে বিবেচনা করা হয় । এটা হয়ত শরীরে এনজাইমের সক্রিয়তা বৃদ্ধি করে এবং কোষগুলোকে সুগার ব্যবহারে সাহায্য করে। অথবা শরীরে ইনসুলিনের উৎপাদন বৃদ্ধিতেও সহায়তা করে থাকতে পারে। এটা নিয়ে বিস্তর গবেষণা এখনও হয়নি যদিও, এটার বড় কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

Bitter melon (করল্লা)

Butsaya/Shutterstock

Butsaya/Shutterstock

  • প্রধান কাজঃ ব্লাড সুগার কমায়
  • স্বাভাবিক গ্রহনের মাত্রাঃ ৫০ থেকে ১০০ মিলিলিটার (প্রায় ৩ থেকে ৬ টেবিলচামচ) রস প্রতিদিন

তিতা করল্লা আরও বেশি সক্রিয়ভাবে শরীরের কোষকে গ্লুকোজ ব্যবহারে সাহায্য করে, অন্ত্রে সুগার শোষণে বাধা দেয়। ফিলিপাইনের একদল গবেষক নারী ও পুরুষদের দুটি দলকে করল্লার ক্যাপসুল খাওয়ান তিন মাস ধরে। এরপর দেখা যায় তাদের রক্তে সুগারের পরিমাণ অল্প পরিমাণে কিন্তু স্থায়ীভাবে কমে গেছে তুলনামুলকভাবে তাদের থেকে যারা অন্যকিছু সেবন করেছে। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টিনাল কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে।

Magnesium (ম্যাগনেসিয়াম)

MIA Studio/Shutterstock

MIA Studio/Shutterstock

  • প্রধান কাজঃ রক্তের সুগার কমায়
  • স্বাভাবিক গ্রহনের মাত্রাঃ ২৫০ থেকে ৩৫০ মিলিগ্রাম প্রতিদিন

ডায়বেটিসে আক্রান্ত মানুষের মাঝে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি নতুন কিছু না। আর এটা আরও খারাপ হতে থাকে রক্তে উচ্চমাত্রায় সুগার থাকলে। কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে যে সম্পূরক খাবারে ম্যাগনেসিয়াম আছে সেই খাবার শরীরে ইনসুলিনের কার্যক্রম উন্নত করে, এবং রক্তে চিনির মাত্রা কমায়। তবে অন্য কয়েকটি গবেষণায় কোন উপকার পরিলক্ষিত হয়নি। আপনার চিকিৎসকের সাথে কথা বলে আপনার শরীরের অবস্থা পরিক্ষা করে নিতে হবে ম্যাগনেসিয়াম গ্রহণ করার আগে।

 

Prickly pear cactus (Opuntia)

Monika Sakowska/Shutterstock

Monika Sakowska/Shutterstock

  • প্রধান ব্যবহারঃ রক্তে সুগারের মাত্রা কমায়
  • স্বাভাবিক গ্রহনের মাত্রাঃ যদি এটা খাবার হিসেবে খান, তাহলে দিনে আধা কাপ ক্যাকটাস ফল রান্না করে খেতে পারেন।

কাঁটাওয়ালা ক্যাকটাস দেখে ভয়ের কিছু নেই, ওদের সারা গায়ে কাঁটা থাকলেও একধরণের ক্যাকটাসে এমন ফল হয় যেটাকে Prickly pear cactus বা Opuntia বলা হয়। এই ফল পেকে গেলে খাওয়া যায় এবং কিছু গবেষণায় দেখে গিয়েছে যে এটা রক্তে সুগারের মাত্রা কমায়। ধারেকাছের দোকানে এটা ভিনদেশে পাওয়া গেলেও আমাদের এখানে পাওয়ার সম্ভাবনা কম। তবু খোঁজ নিতে পারেন অভিজাত বিপণীগুলোতে। গবেশনা বলছে যে এটা সুগারের মাত্রা কমায় তার প্রধান কারন হতে পারে এতে এমন উপাদান থাকে যেটা অনেকটা ইনসুলিনের মত কাজ করে।

Gamma-linolenic acid 

CKP1001/Shutterstock

CKP1001/Shutterstock

  • প্রধান কাজঃ স্নায়ুর যন্ত্রণা কমায়
  • স্বাভাবিক গ্রহনের মাত্রাঃ ২৭০ থেকে ৫৪০ মিলিগ্রাম প্রতিদিন

Gamma-linolenic acid  বা GLA হল এক ধরণের ফ্যাটি অ্যাসিড যেটা সান্ধ্যকালিন একধরণের হলুদ ফুলের (primrose) মাঝে পাওয়া যায়. গবেষণা বলছে এটা গ্রহণ করলে ডায়বেটিসের কারণে সৃষ্ট স্নায়ু যন্ত্রণা কমে যায়।

 

ডায়াবেটিকস রোধে সেরা ১০ খাবার #১ম পর্ব

About The Author
-

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>